মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বিশেষ অর্জন

জনাব মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, নবাবগঞ্জ, ঢাকা; ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা -২০১৮ তে ঢাকা জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হয়। তার উদ্ভাবনী উদ্যোগে নবাবগঞ্জ উপজেলায় এই প্রথম পোকামুক্ত আম উৎপাদন কর্মসূচি পালিত হয়। উন্নয়ন তহবিল হতে ২ লক্ষ টাকার একটি প্রকল্পের মাধ্যমে  ২০টি মেশিন ক্রয় করে ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদে বিতরণ করা হয় এবং এর সাথে বিনামূল্যে পোকামুক্তকরণের ঔষধ বিতরণ করা হয়। কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাগণ বাড়ি বাড়ি গিয়ে কৃষকের গাছের আমের চিকিৎসা করেন। এর ফলে সমগ্র নবাবগঞ্জ উপজেলায় এই মৌসুমে প্রায় ১০ কোটি টাকার পোকামুক্ত নিরাপদ আম উৎপাদিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই কর্মসূচি সাধারণ কৃষকের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ যোগিয়েছে এবং সরকারী দপ্তরের প্রতি জনগণের আস্থা বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও এ উপজেলায় ১.৫ একর জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির ফলগাছ রোপন করে দেশীয় প্রজাতির ফলগাছ উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে।

এ বছর নবাবগঞ্জে শতভাগ নকল মুক্ত পরিবেশে এইচ এস সি পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমবারের মতো নবাবগঞ্জ উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়নের অংশগ্রহণে ‘বঙ্গমাতা ফুটবল প্রতিযোগিতা’র সফল আয়োজন করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সুযোগ্য নেতৃত্বে এই প্রথম প্রমীলা ফুটবল টিম গঠন করা হয় । এবং নবগঠিত প্রমীলা ফুটবল টিম এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে; যা নারীদের উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা পালন করবে বলে সকলে আশাবাদ ব্যক্ত করে।  

এতিমখানা মাদ্রাসায় শিশুদের বিনোদনের জন্য একটি ৪৩ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি প্রদান করা হয়েছে। মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের বেকারতব দূরীকরণের লক্ষে একটি পূর্ণাঙ্গ সেলাই প্রশিক্ষন কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এখানে ২০টি সেলাই মেশিন এর মাধ্যমে ও কারিতাস-এর সহযোগিতায় সেলাই প্রশিক্ষন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

নবাবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের  সম্মানে মহান স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান স্থলে ইমামগণকে পরিবারবর্গসহ আলাদা গ্যালারীতে বসার ব্যবস্থা  ও বিশেষ আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়েছে। মাদ্রাসা শিক্ষিত জনগোষ্ঠীকে মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এটি সর্ব মহলে প্রশংসিত হয়েছে।   

ছবি


সংযুক্তি



Share with :
Facebook Twitter